“কোটা সংষ্কার চাই” দাবিতে আন্দোলনকারীদের উপর পুলিশ ও ছাত্রলীগের হামলা

“কোটা সংষ্কার চাই” দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাথে রাজধানীর সাহাবাগ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে দফায় দফায় পুলিশ ও ছাত্রলীগের সংঘর্স হয়েছে। এতে দুই সাংবাদিক কয়েকজন পুলিশ কর্মি ও প্রায় অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। ভাংচুর করাহয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাস ভবন। ভোরে পরিস্থিতে শান্ত থাকলেও আবারো উত্তেজনা সৃস্টির আশংকা রয়েছে। তবে আলোচনার মাধ্যমে এই পরিস্থিতির সমাধান এর আশ্বাস দিয়েছে আওয়ামীলীগ।

এর আগে গতকাল কয়েকঘন্টা শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের পর রাত ৮ টায় পুলিশের হামলায় ছত্রভঙ্গ হয়ে পরে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থিরা। ছুটাছটির পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টি এস সি থেকে চারুকলা পর্যন্ত এলাকায় উবস্থান নেয় তারা। মধ্যরাত পর্যন্ত ধাওয়া পাল্টাধাওয়ার পাশাপাশি আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর পুলিশ টিয়ার সেল, রাবার বুলেট ছুরে। পুলিশের হামলায় ছুটাছুটি করে সারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছড়িয়ে পরে আন্দোলনকারিরা।

পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হল থেকে ছাত্রীরা বের হয়ে আন্দোলনে যোগ দিলে পুলিশের সাথে যোগ দেয় ছাত্রলীগ। পুলিশ ও ছাত্রলীগের বাধার মুখে ভোরের দিকে পিছু হটে টি এস সির দিকে অবস্থান নেয় আন্দোলনকারীরা। আন্দোলনকারীদের অভিযোগ হামলার সময় তাদের লক্ষকরে গুলি ছুরেছে ছাত্রলীগ।

মধ্যরাতের কিছু পর বিশ্ববিদ্যলয়ের উপাচার্যের বাসভবনে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করা হয়। এ ঘটনার তিব্র নিন্দা জানান ভিসি। পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ডি এম পি কমিশনার। উপাচার্য বলেন যারা হামলা ও ভাংচুর অরেছে তারা শিক্ষার্থী বলে আমার বিশ্বাস হয়না। তিনি বলেন সেখানে বিভিন্ন ভাবে সন্ত্রাসী ঢুকে এসব করেছে।

সেখানে একপর্যায়ে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন আওয়ামীলীগ এর যুগ্ন সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক। তিনি বলেন এ আন্দোলনে বিভিন্ন রকম লোক ঢুকে এটাকে ভিন্ন দিকে নেয়ার চেস্টা করছে। আলোচনার মাধ্যমে এটার সমাধানের আশ্বাস দেন তিনি।

ভোর রাতের দিকে পরিস্থিতি শান্ত হয়। আজ আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাথে আন্দোলনকারীদের আলোচনার কথা রয়েছে। আন্দোলনকারিরা চায় সারা দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এ আন্দোলন ছড়িয়ে পরুক। গতকাল ঢাকা ছারাও দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আন্দোলন-মিছিল হয়।

#কোটা_সংষ্কার_চাই

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.